জানুয়ারি ২৫, ২০২১

সত্যের সন্ধানে সবসময়

ঈশ্বরগঞ্জে বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ

ঈশ্বরগঞ্জে বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ঈশ্বরগঞ্জ ময়মনসিংহঃ ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। সোমবার পৌর এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

জানা যায়, ঈশ্বরগঞ্জ পৌর এলাকার কাকনহাটি গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিন ফকিরের ছেলেদের সাথে দীর্ঘদিন যাবত প্রতিবেশী নূর মোহাম্মদের জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। নূর মোহাম্মদ বেশ কিছু জমি কয়েক দফায় আজিম উদ্দিন ফকিরের কাছে বিক্রি করেন।

ক্রয়কৃত ২৫ শতক জমির মধ্যে দলিলে দাগ নম্বর ভুল হওয়ায় ২০১৫ সালে ঈশ্বরগঞ্জ চৌকি আদালতে দাগ সংশোধনি মামলা করেন মৃত আজিম উদ্দিন ফকিরের ছেলে সাইদুল ইসলাম ফকির। গত চারমাস পূর্বে সাইদুল ইসলাম ফকির মারা গেলে প্রতিপক্ষ নূর মোহাম্মদ ওই জমি নিজের বলে দাবি করেন। বিষয়টি নিয়ে পৌর মেয়র দুইপক্ষকের মধ্যে আপোষ মীমাংসা করে দেন। উভয়পক্ষই বিষয়টি মেনে নিয়ে বেশ কিছুদিন যাবত সুশৃঙ্খল ভাবে বসবাস করে আসছিলো।

কিন্তু কিছু কুচক্রী মহলের প্ররোচনায় নুর মোহাম্মদ গংরা পুনরায় জমি দাবী করে আসছে। ফলে দুইপক্ষের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হলে রোববার রাতে এবং সোমবার সকালে দুই দফায় নুর মোহাম্মদ গংরা আজিম উদ্দিন ফকিরের ছেলেদের নির্মিত টিনের বেড়া ভাংচুর করে বলে জানায় মৃত আজিম উদ্দিন ফকিরের ছেলে শহিদুল ইসলাম। তিনি আরো জানান, তাদের নামে জমির রেকর্ড হয়েছে। কিন্তু দলিলে দাগ ভুল হওয়ায় আদালতের দারস্থ হয়েছেন।

ভাংচুরের বিষয়টি অস্বীকার করে নূর মোহাম্মদ জানান, তারা অন্য দাগে জমি বিক্রি করলেও তাদের বাড়িতে জোর করে জমি দখল নিতে চাইছে প্রতিপক্ষরা। বেড়া দিয়ে তাদের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হচ্ছে। জমির রেকর্ড সংশোধনের জন্য আদালতে মামলা করেছেন।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোখলেছুর রহমান আকন্দ জানান, যেহেতু আদালতে উভয়পক্ষের জমি সংক্রান্ত মামলা চলমান তাই দুপক্ষকেই আদালয়ের রায় না আসা পর্যন্ত স্বস্ব অবস্থানে শান্তি বজায় রেখে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

error: Content is protected !!